রাজনীতি লিড নিউজ

মনোনয়নে আওয়ামী লীগের চমক!

বিএনএন ৭১ ডটকম
ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ৩০০ আসনে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এবার মনোনয়নে ক্ষমতাসীনদের চমক থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরদিন গতকাল শুক্রবার সকালে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দুটি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের মধ্যে দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়। এর মধ্যে একটি ফরম কেনা হয়েছে শেখ হাসিনার নিজের আসন গোপালগঞ্জ -৩ (টুঙ্গীপাড়া-কোটালীপাড়া) আসনের জন্য। ওবায়দুল কাদের ফরমটি কিনে আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ আবদুল্লার কাছে হস্তান্তর করেন। শেখ হাসিনার জন্য কেনা অন্য ফরমটি কোন আসনের তা পরে প্রকাশ করা হবে বলে ওবায়দুল কাদের জানান।

২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জ-৩ আসনের পাশাপাশি তার শ্বশুরবাড়ির এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জ (রংপুর-৬) আসনে নির্বাচন করে জয়ী হন। পরে তিনি রংপুর-৬ আসনটি ছেড়ে দিলে উপনির্বাচনে ওই আসনের এমপি হন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। এবারও শিরীন শারমিন চৌধুরীর জন্য রংপুর-৬ আসনের মনোনয়ন ফরম কিনে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাববী মিয়ার কাছে হস্তান্তর করেন ওবায়দুল কাদের। আর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের জন্য নোয়াখালী-৫ আসনের একটি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় এবং পাশের নির্বাচন পরিচালনা অফিসে ফরম বিতরণ কার্যক্রমের সূচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রচণ্ড আগ্রহ ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে আমাদের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়েছে।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কতদিন পর্যন্ত কেনা যাবে জানতে চাইলে দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ১১ নভেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলের মনোনয়ন বোর্ডের সভা হবে। সেখানেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। সর্বশেষ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোট দুই হাজার ৬০৮ জন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছিল। এবার সেই সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছেন দলটির নেতারা। এবার মনোনয়ন ফরমের দাম ২৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ হাজার টাকা করা হয়েছে। ফরম বিক্রি থেকে গতবার আওয়ামী লীগের তহবিলে জমা পড়েছিল প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা। এবার তা দশ কোটি ছাড়িয়ে যাবে বলে দলটির নেতাদের প্রত্যাশা। আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা অফিসে মনোনয়ন ফরম বিক্রির জন্য খোলা হয়েছে আট বিভাগের আটটি বুথ। সারা দেশে থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীরা তাদের কর্মী-সমর্থক নিয়ে ধানম-িতে ভিড় করায় গত বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই সেখানে চলছে উৎসবের আমেজ। বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা আওয়ামী লীগ কর্মীরা ধানমণ্ডির ৩ নম্বর সড়ক ও আশপাশের এলাকা সরগরম করে রেখেছেন ঢাক-ঢোল ও গানবাজনায়। পছন্দের নেতাদের প্রার্থী করতে স্লোগানও দিচ্ছেন তারা। মনোনয়ন ফরম বিক্রি ঘিরে এই ভিড়ের কারণে সিটি কলেজ থেকে জিগাতলা মোড় পর্যন্ত রাস্তার একপাশে দেখা গিয়েছে ব্যাপক যানজট। ফলে ছুটির দিনের সকালেও অনেককে পায়ে হেঁটে গন্তব্যে পৌঁছাতে হয়েছে।

সৈয়দ আশরাফ ও ছোট ভাইয়ের জন্য একই আসনের ফরম সংগ্রহ: একই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও তার ভাই সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম। ঢাকা বিভাগের মনোনয়ন বুথের দায়িত্বে থাকা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামসুল কবির রাহাত জানান, সকালে ফরম বিক্রি শুরুর কিছুক্ষণ পর কিশোরগঞ্জ-১ আসনের বর্তমান সাংসদ জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফের জন্য ফরম সংগ্রহ করে নিয়ে যান তার ব্যক্তিগত সহকারী তোফাজ্জল হোসেন। পরে সৈয়দ আশরাফের ছোট ভাই অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলামও একই আসনের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন বলে জানান ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। তিনি বলেন, “সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এবং ওঁর ভাই সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। তাছাড়া আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য জাতীয় সংসদের উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীও ফরম নিয়েছেন।

জাতীয় চার নেতা ১৯৭৫ সালে কারাগারে নিহত হওয়ার পর সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছেলে আশরাফ যুক্তরাজ্যে চলে যান। দীর্ঘদিন পর দেশে ফিরে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে কিশোরগঞ্জ-১ (সদর ও হোসেনপুর) আসন থেকে নির্বাচন করে তিনি সংসদ সদস্য হন। এরপর ২০০১, ২০০৮ ও ২০১৪ সালে পুনর্নির্বাচিত হন তিনি। ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত ৬৮ বছর বয়সী আশরাফ এখন থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অসুস্থতার কারণে গত ১৮ সেপ্টেম্বর সংসদ থেকে ছুটিও নিয়েছেন তিনি। তার ছোট ভাই শাফায়াত গত ৪ নভেম্বর কিশোরগঞ্জে এক অনুষ্ঠানে বলেন, সৈয়দ আশরাফের অসুস্থতা যে পর্যায়ে পৌঁছেছে, তাতে তার রাজনীতিতে ফিরে আসার সম্ভাবনা খুবই কম। তারা এখন চিকিৎসার দিকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *