আন্তর্জাতিক

ট্রাম্পের সঙ্গে ভালো আছি: মেলানিয়া

বিএনএন ৭১ ডটকম
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিজের বৈবাহিক জটিলতার গুঞ্জনকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেছেন, স্বামী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ভালো আছেন। মেলানিয়া স্পষ্ট করে বলেছেন, ট্রাম্পের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক তার ‘উদ্বেগ বা মনোযোগের’ বিষয় নয়, পালন করার মতো আরো অনেক জরুরি দায়িত্ব রয়েছে তার। ট্রাম্পের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যমের ধারণা ‘সুখকর’ নয় বলে মন্তব্য করেছেন মেলানিয়া।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ভালোবাসেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, ‘হ্যাঁ, আমরা ভালো আছি’। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক থাকার কথাও অস্বীকার করে আসলেও পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েল ও সাবেক প্লেবয় মডেল কারেন ম্যাকডোগাল ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক থাকার অভিযোগ করে আসছেন। এসব অভিযোগ সামনে আসার পর মেলানিয়ার সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যমে নেতিবাচক খবর প্রকাশিত হতে শুরু করে।

গুঞ্জন উঠে, তাদের সম্পর্ক অবনতির দিকে যাচ্ছে। তবে এবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেলানিয়া বলেন, ‘আমি আমার স্বামীকে ভালোবাসি আর আমাদের সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাভারেজ সবসময় সঠিক নয়।’ তিনি বলেন, ‘এটা আমার উদ্বেগ বা মনোযোগের বিষয়বস্তু নয়। আমি একজন মা ও একজন ফার্স্ট লেডি আর আমার আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ চিন্তা এবং করার মতো কাজ রয়েছে। আমি জানি কোনটা সঠিক এবং কোনটা সত্যি আর কোনটা সত্যি নয়।’

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি গিলানি জনসমক্ষে বলে আসছেন, স্টর্মি ড্যানিয়েলসের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার কথা ট্রাম্পের অস্বীকার করাকে বিশ্বাস করেন মেলানিয়া। এই বিষয়ে এবিসির কাছে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন মেলানিয়া। তিনি বলেন, ‘আমি কখনোই গিলানির সঙ্গে কথা বলিনি। সাবেক প্লেবয় কারেন ম্যাকডোগাল দাবি করে আসছেন ট্রাম্পের সঙ্গে তার দশ মাস সম্পর্ক ছিল। ২০০৬ সালে এই সম্পর্ক শুরু হয়। সেই সময়ে তিনি মেলানিয়াকে বিয়ে করেছেন আর দ্য অ্যাপরেন্টিস নামে একটি টেলিভিশন শো উপস্থাপনা করতেন। এই কথা শুধুমাত্র দ্য ন্যাশনাল এনকোয়ারারের কাছে প্রকাশ করতে ম্যাকডোগাল তাদের সঙ্গে দেড় লাখ মার্কিন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষর করে। তার সেই সাক্ষ্য এখনো প্রকাশ পায়নি। তবে এপ্রিলে ট্যাবলয়েডটির প্রকাশকের সঙ্গে এই গল্প প্রকাশ করার বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছান।

স্টর্মি ড্যানিয়েলসের প্রকৃত নাম স্টিফেন ক্লিফোর্ড। তার অভিযোগ ক্যালিফোর্নিয়া ও নেভাদার মধ্যকার এক অবকাশ যাপন কেন্দ্র লেক তাহোয়ের একটি কক্ষে ২০০৬ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন তিনি। ওই ঘটনার পর তাদের সঙ্গে সম্পর্ক চলমান রয়েছে। ড্যানিয়েলস অভিযোগ করেন ২০১৬ সালের নির্বাচনের আগে আইনজীবী মাইকেল কোহেনের মাধ্যমে তাকে এক লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার দেন ট্রাম্প। বিনিময়ে তাকে চুপ থাকতে বলেছিলেন তিনি। এই দুই নারীর অভিযোগই অস্বীকার করে আসছেন ট্রাম্প।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *