আন্তর্জাতিক

ইদলিবে রাসায়নিক হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিরিয়া: যুক্তরাষ্ট্র

বিএনএন ৭১ ডটকম
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ার সরকারি বাহিনী ইদলিবে রাসায়নিক অস্ত্র হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের এ প্রস্তুতির ‘অনেক প্রমাণও আছে’ বলে দাবি করেছেন সিরিয়া বিষয়ক নতুন মার্কিন দূত জিম জেফ্রে। গত বৃহস্পতিবার জিম এ সতর্ক বার্তা দেন এবং সিরিয়ায় বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শেষ বড় ঘাঁটি ইদলিবে রাসায়নিক হামলার ফল মারাত্মক হবে বলেও তিনি হুঁশিয়ার করে দেন। খবর রয়টার্সের

এদিকে সিরিয়া সরকার বরাবরই যুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে। সেনারা নতুন করে হামলার প্রস্তুতি নিতে থাকার সময়ে রাশিয়ার বিমান থেকে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে বোমা হামলা চালানো হচ্ছে। ইদলিবে সর্বাত্বক যুদ্ধ শুরু হলে সেখানে মানবিক বিপর্যয় ঘনিয়ে আসার ব্যাপারে এর আগেই সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। এ রকম বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে তুরস্ক তাদের সীমান্তে নতুন করে শরণার্থীর ঢল বাড়ার আশঙ্কায় আছে।
মার্কিন দূত জিম জেফ্রে বলেন, ‘হামলার ব্যাপারে হুঁশিয়ার করার যথেষ্ট কারণ আছে। এ ধরনের হামলা আমাদের কাছে বেপরোয়া অভিযান বলে গণ্য হবে। আর এ কারণেই এটি নিয়ে আপত্তি আছে। হামলায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের প্রস্তুতি চলছে বলে আমাদের কাছে প্রচুর প্রমাণও আছে।’

গত ১৭ আগস্ট মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সিরিয়া বিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা হিসেবে জিম জেফ্রেকে নিয়োগ করা হয়। এর পরই সাংবাদিকদেরকে দেয়া প্রথম এক সাক্ষাৎকারে সিরিয়া নিয়ে কথাগুলো বলেন তিনি। তবে কি ধরনের প্রমাণ আছে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু বলেননি জেফ্রে।

হোয়াইট হাউস এর আগেই সতর্ক করে বলেছে, সিরিয়ার সরকারি বাহিনী রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করলে যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্ররা সঙ্গে সঙ্গে এর দাঁত ভাঙা জবাব দেবে।

জেফ্রে বলেন, ‘রাশিয়া এবং সিরিয়া বাহিনী হামলা চালালে এবং রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করলে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় তুর্কি এলাকাগুলোতে কিংবা সিরিয়ায় তুর্কি নিয়ন্ত্রণাধীন অঞ্চলগুলোতে শরণার্থীর ঢল নামবে।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *