প্রবাস

সিউলে জাতীয় শোক দিবস পালন

বিএনএন ৭১ ডটকম
সিউল (দক্ষিণ কোরিয়া): জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইতিহাসের কালজয়ী মহানায়ক, মহান নেতা, বিশ্বনেতা। দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম এ কথা বলেন।

যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে সিউলে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদতবার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে সকালে দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম। এ সময় দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিকেল ৬টায় এ উপলক্ষে দূতাবাস প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। আলোচনার শুরুতে শোক দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়।
রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘ সংগ্রামী জীবন, আদর্শ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতায় তাঁর অবিস্মরণীয় অবদানের কথা তুলে ধরে বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে জাতির ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় রচনা করেছিল।

আবিদা ইসলাম বলেন, পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচারের রায়ের পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ দূতাবাসসমূহ কাজ করে যাচ্ছে।

আলোচনায় আরো বক্তব্য দেন কাউন্সেলর মাসুদ রানা চৌধুরী, দূতালয় প্রধান রুহুল আমিন, প্রথম সচিব (শ্রম) মুকিমা বেগম।
প্রবাসী বাংলাদেশিরাও আলোচনায় বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রথম সচিব ( দূতালয়) রুহুল আমিন।

এরপর বঙ্গবন্ধু, তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্য ও ১৫ আগস্টে শাহাদত বরণকারী সকলের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক কোরিয়ানের উপস্থিতি শোক দিবসের মাহাত্ম্য বাড়িয়ে দেয়।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *