শিল্প সাহিত্য

জীবনানন্দের কবিতা নিয়ে সুকান্তের রাত্রি অনিমেষ

বিএনএন ৭১ ডটকম
শিল্প সাহিত্য ডেস্ক: জীবননানন্দ দাশ বাংলা কবিতায় একটি উল্লেখযোগ্য বাঁকের নাম। চর্যার দোহাকারদের থেকে শুরু করে আদি ও মধ্যযুগ পাড়ি দিয়ে আধুনিক যুগে প্রবেশ করার ক্ষেত্রে বাংলা কবিতায় মুকুন্দরাম, বড়– চন্ডীদাশ,জ্ঞানদাস,বিজয় গুপ্ত,ভারতচন্দ্র,মধুসূদন দত্ত, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কাজী নজরুল ইসলাম প্রমুখের নাম যতখানি গুরুত্বপূর্ণ,জীবনানন্দ দাশ ও ঠিক ততোখানি গুরুত্ব রাখেন। এমনকি আধুনিকতার একরৈখিক বর্গকে গুঁড়িয়ে দিয়ে যে উত্তর আধুনিক বহুরৈখিকতার নতুন ঢেউ লেগেছে সাম্প্রতিক বাংলা কবিতায়, তারও প্রথম ইশারা জীবনানন্দ দাশের কবিতায় আমরা পাই। সমকালীন বিশ্বকবিতার সমান্তরালে তিনি ছিলেন বাংলা ভাষার উজ্জ্বলতম কবি। রবীন্দ্রনাথ থেকে শুরু করে অনেকেই প্রথমে তাঁর কবিতাকে চিনে উঠতে না পারলেও পরবর্তীকালে মতপরিবর্তনে বাধ্য হয়েছেন। তাঁর মৃত্যুর পর অপ্রকাশিত- অগ্রন্থিত রচনাবলির বিশাল ভান্ডার আবিষ্কৃত হলে তিনি হয়ে ওঠেন বাংলা সাহিত্যে এক বিস্ময়কর নাম।

মূলত জীবনানন্দ চিত্রকল্পের কবি। তাঁর বিরাট কৃতিত্বের একটি প্রধান নির্ভর কাব্যপ্রচলন কে বর্জন এবং নতুন কাব্যভাষা সৃষ্টি। একটির পর একটি চিত্রকল্প জড়ো করে যে ভাষা তিনি সৃষ্টি করেছিলেন,যা তাঁর একান্ত নিজস্ব। তাঁর কবিতায় প্রেম ও প্রকৃতি,ইতিহাস-চেতনা ও সমাজ, রাজনীতি-চেতনা,ব্যক্তি ও স্বদেশ, তাঁর জীবন ও মৃত্যুচিন্তা- সমস্ত মিলে তাঁর কবিতার এক আলাদা ও একক পৃথিবী তৈরী করেছে। সে পৃথিবী রবীন্দ্রনাথের মতো কল্যানময়ী নয়, নজরুলের মতো আশাবাদী নয়- সে পৃথিবী আমাদেরই,যেখানে আশা ও নিরাশা হাত ধরাধরি করে চলে- সে পৃথিবীর আবহমান বানী সমাহৃত হয় এ রকম একটি বাক্যে “ অসম্ভব বেদনার সাথে মিশে রয়ে গেছে অমোঘ আমোদ”

“রাত্রি অনিমেষ” -জীবনানন্দ দাশের অগ্রন্থিত কিছু কবিতার আবৃত্তি সংকলন। যা জীবনানন্দ দাশকে আবার নূতন ভাবে পরিচয় করে দেবে আমাদের সাথে। এই ঈদে অগ্নিবীণা প্রকাশনা হতে বের হয়েছে তরুণ বাচিক শিল্পী সুকান্ত’র সপ্তম আবৃত্তি অ্যালবাম “রাত্রি অনিমেষ”। অ্যালবাম পাওয়া যাবে দেশব্যাপী রঙ-বাংলাদেশ,জি মিউজিকের আউটলেটে, ঢাকার শাহবাগস্থ আজিজ সুপার মার্কেটের সুরেরমেলায়।

সুকান্ত গুপ্ত। আবৃত্তির নতুন প্রজন্মের উত্তোরাধিকারী এবং পরিধি বিস্তারকারী শিল্পী- যিনি সাংগঠনিক চর্চায় সমুজ্জল ছোটবেলা হতেই। নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। জন্ম সিলেট শহরে। বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্র সহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক মাধ্যমে আবৃত্তি ,উপস্থাপনা ও সংবাদ পাঠক হিসেবে কাজ করছেন। বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সদস্য সংগঠন শ্রুতি সিলেটের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সুকান্ত শুদ্ধ ধারায় সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *